মুক্তধারা

কেন পালন করা হয় Halloween?

প্রায় ২০০০ বছর আগে একটা জায়গায় যেটা এখন আয়ারল্যান্ড নামে পরিচিত এবং উত্তর ফ্রান্সে সেল্টস নামক এক জাতি বাস করতো। তারা প্রচুর পরিমান খাবার আবাদ করতো এবং তাদের হারভেস্ট টাইম মানে চাষের মৌসুম শেষ হত অক্টোবর মাসে। তো, তারা ৩১ অক্টোবরে তাদের বছরের শেষ ধরে নতুন বছর উদযাপন করতো ৩১ অক্টোবর রাতে। তারা ওই উৎসবের নাম দিয়েছিল “সামহাইন”।
“সামহাইন” নামটা তারা নিয়েছিল তাদের মৃত্যুদেবতা(অন্ধকারের দেবতা নামেও পরিচিত ছিলেন যিনি) “সামহাইন” এর নাম থেকে। সেল্টসরা বিশ্বাস করতো শীতের মৌসুমের শেষের দিকে কবর থেকে অপঘাতে মারা যাওয়া মৃতদেহরা জীবিত হয়ে উঠে আসে এবং তাদের মৃত্যু যাদের কারনে হয়েছিল তাদের উপর প্রতিশোধ নেয় আর এই পুরো প্রক্রিয়া সমাধা হয় তাদের মৃত্যুদেবতা “সামহাইন” এর মাধ্যমে। এর বাইরে সেল্টসা বিশ্বাস করতো অতৃপ্ত আত্মারা কবর থেকে উঠে আসলে পরের বছরের ভবিষ্যৎবানী করা সহজ হয়ে উঠে সেল্টস যাজকদের পক্ষে। তাই তারাও তাদের তাদের মৃত্যুদেবতা সামহাইন এর কাছে প্রার্থনা করে যাতে শীতের শেষে অতৃপ্ত আত্মারা উঠে আসতে পারে।
পরবর্তীতে 43 AD তে রোমানরা তাদের দুইটা উৎসবকে সেল্টসদের সামহাইন উৎসবের সাথে যোগ করে। একটা উৎসব মৃত আত্মাদেরকে স্মরণ করে যেটা ফেরালিয়া নামে পরিচিত। আরেকটা উৎসবে তারা তাদের গাছ এবং ফলের দেবতা পোমোনার প্রতি সম্মান প্রদর্শন করে(সেখান থেকেই মূলত মিষ্টি কুমড়া দিয়ে হ্যালইন পালন করার প্রথা চালু হয়)। পরবর্তীতে 800 AD এর দিকে সেল্টসদের এরিয়াগুলোয় ক্রিস্টান ধর্ম ছড়িয়ে যায়। ৭ম শতাব্দীতে ক্রিস্টান যাজক পোপ বোনিফেস (৪) ১ম নভেম্বরকে “সেইন্টস ডে” ঘোষণা করে। তারা সেদিন সকল সাধুদের(সেইন্ট) এবং মৃত মানুষদের প্রতি সম্মান দেখায়। ক্রিস্টান যাজক পোপ বোনিফেস(৪) “সেইন্টস ডে” এর আগের রাত কে মানে ৩১ অক্টোবরের রাতকে hallows Eve ঘোষণা করেন।পরবর্তীতে যেখান থেকে Halloween শব্দ আসে।
Source: Google and YouTube