সেলুলয়েডের গল্প

Ustad Hotel (2012) । মালায়লাম মুভি

Movie Name – Ustad Hotel (2012) (Must Watch)

Director – Anwar Rasheed

Writer – Anjali Menon

Imdb Rating – 8.3

Cast – Dulquer Salman, Nithya Menen,Thilakan

কিছু কিছু মুভি হয় স্টোরি হয় খুব সুন্দর, কিছু ছবি স্টোরি তেমন শক্ত-পোক্ত না হলেও একটিং হয় দারুন। আর, হাতেগোনা এমন কিছু মুভি তৈরি হয় যেখানে স্টোরি আর একটিং, দুইটি বিষয়ের-ই এক চমৎকার সংমিশ্রণ দেখা দেয়। Ustad Hotel নিসন্দেহে তৃতীয় ধাপে থাকবে। আমরা সবাই জানি Passion বলে একটি বিষয় থাকে৷ আমাদের ভাললাগা বিষয়গুলো একসময় আমাদের আপন সত্তায় পরিণত হয়। Ustad Hotel তেমনি এক মুভি যেখানে দেখানো হয় যে আপনার উচ্চাকাঙ্খা আপনার আশেপাশের ঘটনাগুলো র পাশে কিছুই নয়। মসলা ও একশন বিহীন রুচিসম্মত একটি শিক্ষনীয় সিনেমা এটি।

আমরা তো সকলেই খেতে পছন্দ করি। কিন্তু কোনো কোনো একটি ভাল খাবার তৈরি হওয়ার পেছনের কারিগর কে তা নিয়ে কি কখনো ভাবি? ভাল রেসিপি কি শুধু পরিমাণমত উপকরণ দিয়েই হয় নাকি এ-র পেছনে থাকে আরো অন্তনিহিত কোনো অর্থ? মুভির মেইন ক্যারেক্টর ফেইজি (দুলকার সালমান) -র শখ যে সে শেফ হবে। অতপর ইউকের বড় কোন রেস্টুরেন্টে -র এক্সিকিউটিভ শেফ হিসেবে কাজ করবে। কিন্তু ঘটনাক্রমে ভারতে ফিরে আসলে তাকে সেখানে থেকে যেতে হয় এবং তার দাদা (Grandfather) -র কাছে সে রান্না শিখতে শুরু করে। তার দাদা বিশ্বাস করেন খাবার শুধুমাত্র খাওয়ার জন্য নয়, একজন লোক যখন খাবার খেয়ে তৃপ্তি পায় তখন-ই একজন শেফ-র পরিশ্রম সার্থক হয়। শুধুমাত্র ভাল রাধতে জানলেই শেফ হওয়া যায় না, স্পেশাল এমন কিছু রেসিপি থাকে যা একজন শেফ-কে আরো স্পেশাল করে তোলে। যেমন স্পেশাল বিরিয়ানি

সিনেমা মেকিং খুব সুন্দর। মুভিটি দেখে আপনারা একিসাথে অনেকগুলো বিষয়ে ধারণা পাবেন। বাবা-ছেলের সম্পর্ক, দাদা-নাতির সম্পর্ক ভালবাসার মানুষের মধ্যেকার সম্পর্ক। করিম চাচা ( থিলাকান)-র অভিনয় ছিল দুর্দান্ত। চা বানানো অথবা তাঁর প্রথম প্রেম-র গল্প নাতি কে জানানো ছাড়াও মুভিতে তার হাসি আর এক্সপ্রেশন আলাদা মাত্রা এনে দিয়েছে৷

একটা পার্ট -এ কিছু বাচ্ছা ফেইজি-র হাতের তালুতে এসে কিছু সংকেত দেখায় যা সেখানকার টিচার-রা ফেইজিকে বুঝিয়ে দেয়। তারা আসলে তাকে ধন্যবাদ জানায়৷ একজন শেফ-র জীবনে এ-র চেয়ে বড় আর কি হতে পারে। এই মুহুর্তটি তার পুরো দৃষ্টিভঙ্গী বদলে দেয়।

কিছু কথা – ফিল্মফেয়ার এওয়ার্ড সহ সেরা অভিনেতা, সেরা স্ক্রিনপ্লে সহ অনেকগুলো পুরষ্কার এ-ই সিনেমার ঝুলিতে রয়েছে।কালিকটের বিচে মুভির বেশিরভাগ শ্যুটিং হয়েছে। এমনকি রাতারাতি একটি হোটেল নির্মান হতে দেখে স্থানীয় বাসিন্দারা অবাক হয়ে যায়, কিন্ত পরে তারা বুঝতে পারে যে এটা একটা মুভি সেট৷

Pettah Junction, Trivandrum এ এ-ই মুভি-র দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে একটি হোটেল বানানো হয় যার নামও Ustad Hotel – যেখানে মূল সিনেমায় হোটেলের যে ইন্টিরিওর ডিজাইন রয়েছে সেটা ফলো করা হয়েছে। যেমন – টায়ারে Ustad Hotel লেখাটা। মুভিটি মালায়াম ভাষার পাশাপাশি কান্নাড়ি আর তেলেগু ভাষায় ডাব করা হয়েছে। এই মুভি দেখার সময় আপনার এক মিনিট ও বোর হওয়ার সুযোগ নেই।

প্রায় সবার-ই মুভিটা দেখা৷ তবুও যারা এখনো দেখেননি তারা জলদি দেখে ফেলুন। দেখবেন, নিশ্চয়ই আপনাকে যদি কেউ জিজ্ঞেস করে যে প্রিয় সিনেমা কি তাহলে আপনি কোনো সন্দেহ ছাড়াই বলে দিতে পারবেন Ustad Hotel.
So, Happy Watching