'ও ডাক্তার'

সাইকোলজির মতে আপনার ব্যক্তিত্ব জানুন

কারো সাথে প্রথম দেখা হলে আপনি পরিমাপ করতে চাইবেন যে, মানুষটি কে এবং কিসের প্রতিনিধিত্ব করছে। এজন্যই আপনি নির্দিষ্ট স্থিতিশীল গুণাবলী যেমন- সততা, উদারতা এবং বুদ্ধিমত্তার সন্ধান করেন। এই বিষয়গুলোর প্রতি মনোযোগ দিয়ে আপনি সেই ব্যক্তিটির সাথে অন্তরঙ্গ সম্পর্ক করবেন কি করবেন না সেটি নির্ধারণ করে থাকেন। চারিত্রিক বিচার বিবেচনার মাধ্যমে বড় ধরনের কোনো সিদ্ধান্ত যেমন- রোমান্টিক সম্পর্ক করা, প্রতিষ্ঠানে নিযুক্ত করা অথবা চাকরির ইন্টারভিউ করা ইত্যাদি সহজ হয়। এগুলোর উপর ভিত্তি করেই মানুষ আপনাকে বিচার করে এবং আপনার ব্যক্তিত্ব নির্ধারণ করে। মানুষের আচরণের আরো কিছু দিক আছে যা ব্যক্তিত্ব প্রকাশ করে। আজ সেই ছোট খাট বিষয়গুলোই আমরা জেনে নিব আসুন।

১। হাতের লেখা

এক গবেষণার মাধ্যমে জানা যায় যে, লেখার ধরন এবং লেখার আকার দেখেও মানুষের সম্পর্কে ধারণা করা যায়। National Pen Company এর এই গবেষণায় জানা যায় যে, যাদের হাতের লেখা ছোট হাতের তারা লাজুক, অতিরিক্ত যত্নবান এবং পড়ুয়া হয়, অন্যদিকে যাদের হাতের লেখা বড় তারা বহির্গামী ও মনোযোগ আকর্ষণে সচেষ্ট হন। যারা কোনো জিনিষ গুরুত্ব সহকারে নেন এবং একগুঁয়ে স্বভাবের হন তারা লেখার সময় অনেক বেশি চাপ প্রয়োগ করেন, অন্যদিকে যারা হালকাভাবে লেখেন তাঁরা অনেক বেশি সহানুভূতিশীল হন।

২। পোশাকের রঙ

Psychology Today এর মতে আপনার পরিধেয় পোশাক আপনার সম্পর্কে অনেক কিছু নির্দেশ করে, যেমন- যারা গাড় রঙ, কালো বা বাদামী রঙের কাপড় পরিধান করেন, তারা সংবেদনশীল ও শৈল্পিক রুচির হন। যারা লাল রঙের কাপড় পরিধান করেন তারা প্রাণোচ্ছল ব্যক্তিত্বের হন। যারা সবুজ রঙ পছন্দ করেন তারা অনুগত ও স্নেহশীল হন, যারা সাদা রঙ পছন্দ করেন তারা সংগঠিত এবং যৌক্তিক হন এবং যারা নীল রঙ পছন্দ করেন তারা দৃঢ়, সংবেদনশীল এবং অন্যদের প্রতি সহানুভূতিশীল হন।

৩। হ্যান্ডশেক

লেখক Julian Parge বলেন, ‘দৃঢ়ভাবে হ্যান্ডশেক আত্মবিশ্বাস ও বলিষ্ঠতার প্রতিফলন ঘটায়, দুর্বল হ্যান্ডশেক নির্দেশ করে কম আত্মবিশ্বাস ও এই ধরনের লোকরা সব সময় সহজ উপায়ে কাজ সেরে ফেলার সুযোগের অপেক্ষায় থাকে’। অর্থাৎ করমর্দনের মাধ্যমেও মানুষের ব্যক্তিত্বের প্রকাশ ঘটে। এক গবেষণায় দেখা গেছে যে, দৃঢ় হ্যান্ডশেক এর মানুষ মিশুক, আবেগপূর্ণ হয় এবং এরা লাজুক ও বাতিকগ্রস্থ হয় না।

৪। নখ কামড়ানো

শারীরিক কিছু আচরণ যেমন- যারা নখ কামড়ান তারা অধৈর্য, হতাশ অথবা উদ্বিগ্ন বা বিষণ্ণ অনুভব করেন। একটি গবেষণায় পাওয়া গেছে যে, যারা নখ কামড়ান তারা নার্ভাস থাকলেও পারফেকশনিস্ট হয় এবং এরা পুরোপুরি রিলেক্স হতে পারে না।

৫। জুতা

মনোবিজ্ঞানীদের মতে, মানুষের পরিধেয় জুতা দেখে তার সম্পর্কে অনেক কিছুই ধারণা করা যায়, যেমন- তার উপার্জন, রাজনৈতিক অন্তর্ভুক্তি, জেন্ডার এবং সম্ভবত বয়স।

৬। চোখ

মানুষের অন্তরের আয়না হচ্ছে চোখ। আপনি কি ভাবছেন বা কি অনুভব করছেন, এমনকি আপনি অনুগত নাকি প্রতারক তাও বুঝা যায়। এক গবেষণায় দেখা গেছে যে, নীল চোখের মানুষ অমায়িক হয় এবং এরা অনেক বেশি অ্যালকোহলিক হয় কালো চোখের মানুষদের চেয়ে। চোখে চোখ রেখে কথা না বলতে পারলে দুর্বল ও আত্মনিয়ন্ত্রণের অভাব আছে বোঝা যায়।

৭। সময়ানুবর্তিতা

গুরুত্বপূর্ণ কোনো মিটিংয়ে দেরিতে গেলে নেতিবাচক প্রভাব পড়ে, অন্যদিকে সময়মতো উপস্থিত হলে বোঝা যায় যে, অন্যের সময়ের ব্যাপারে আপনি সহানুভূতিশীল এবং আপনি মানসিকভাবে প্রস্তুত ও স্ব-প্রণোদিত।

৮। পান করার সময় কোন দিকে তাকাচ্ছেন

লেখক David Junto বলেন, কোনো মানুষ পান করার সময় যখন কাপের ভেতরে তাকান তখন বোঝা যায় তিনি, অন্তর্মুখী, আদর্শবাদী ও আত্মসচেতন। আর যিনি কাপের প্রান্তের দিকে তাকাবেন তিনি অন্যের দ্বারা প্রভাবিত হন, পরিবেশগতভাবে সজাগ থাকেন, ভাবনাহীন, মিশুক এবং বিশ্বাসী হন। যিনি পান করতে করতে চোখ বন্ধ করেন তখন বোঝা যায়, তিনি ব্যাথা বা অস্বস্তি অনুভব করছেন অথবা আনন্দ ও স্বস্তি বোধ করছেন।

৯। রেস্টুরেন্টের কর্মচারীদের সাথে আপনার ব্যবহার

রেস্টুরেন্টের ওয়েটার, পরিচারক ও সিকিউরিটি গার্ড-এর সাথে আপনার আচরণ কেমন তা দেখেও আপনার ব্যক্তিত্ব অনুমান করা যায়। Panera Bread এর CEO Ron Shaich বলেন, তিনি একজনকে চাকরিতে নিয়োগ দিতে অস্বীকার করেছিলেন, কারণ তিনি তাকে একজন টেবিল পরিষ্কার করতে আসা এক কর্মীর সাথে খারাপ ব্যবহার করতে দেখেছিলেন।

সুত্রঃ সাইকোলজিক্যাল মাইন্ড (ইন্টারনেট)