সেলুলয়েডের গল্প

পদতলে চমকায় মাটি। বইয়ের কথা

বইয়ের নামঃ পদতলে চমকায় মাটি
লেখকঃ সুহান রিজওয়ান
মোট পৃষ্টাঃ ৩৭৬
প্রকাশনীঃ ঐতিহ্য
মুদ্রিত মূল্যঃ ৬০০ টাকা

আমার কথাঃ

আমরা প্রতিটা মানুষ এখন নিজেদের তৈরি করা একটি গণ্ডির মধ্যে থাকি, এর মধ্যেই বেচে থাকি আবার এর মধ্যেই মরে যাই, আর এই অধিকাংশের বাইরের অল্পাংশ মানুষ মুক্ত আকাশ দেখে, মুক্তির স্বাদ নেয় এবং কিছু কিছু ক্ষেত্রে সক্ষম হয় আমাদের মত কুয়োয় বসবাস কারি মানুষের মত দেখতে প্রাণীদের চোখে আংগুল দিয়ে দেখিয়ে দিতে আমাদের সংকীর্ণতা, চারপাশের নোংরামি – যাতে আমরা সেগুলো নিয়ে কাজ করতে পারি বা ঘুম থেকে জেগে উঠি, সচেতন হই নিজেদের নিয়ে! সবদিক থেকে সুহান রিজওয়ান স্বার্থক।

গল্পের প্লট খুবই প্রসারিত আমাদের চারপাশের ঢাকা থেকে শুরু করে থানচি গিয়েও থামেনি! কিছু কিছু পেজ আমি কয়েকবার পড়েছি, আহা! এত ভালো করে ঢাকার ছবি, বর্তমান ঢাকার ছবি, অন্য কেউ একেছে কিনা আমার জানা নেই – কেউ পুরাতন ঢাকা ঘুরতে চাইলেও তাও আছে, বইটি যেন মলাট বদ্ধ একটা স্বর্ণখনি, পাতায় পাতায় ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে আজাদের মত সমরের মত মানুষদের কথা যারা খাটি মানুষ এই পচন ধরা সমাজে। আমার সবচেয়ে ভালো লেগেছে নেরেটিভের ধরণ আর ডিটেইল – বর্তমান রাজনৈতিক অবস্থা, শান্তিচুক্তি, আদিবাসীদের কথা, সেটেলার – বুলসআই!!!

এই গল্পে সবাই তার নিজেস্ব যায়গায় তার নিজের গল্পের নায়ক, সমর কুমার চাকমা তার ফুটবলের মাঝে খুজে ফিরছে তার নিজেকে আর ভুলে থাকতে চাইছে তার শান্তিপ্রিয়া সহ পাহাডের জীবনকে, আজাদ ফুটবলের মাধ্যমেই নিতে চাইছে তার অপমান অন্যায়ের প্রতিশোধ, আরিফ শেষ পর্যন্ত খুজে পায় নিজেকে!

এত ডিটেইলে কেউ আমাদের অবস্থা তুলে ধরতে পারে!! আমি মুগ্ধ! আমরা এখন যেমন ক্রিকেট নিয়ে মেতে থাকি একসময় ফুটবলের জোয়ার ছিলো আমাদের দেশে কিভাবে তা হারিয়ে গেলো তাও বারবার ফিরে এসেছে লেখকের জাদুকরী লেখনীতে।

ব্যক্তিগত ভাবে বলতে গেলে মাস্টরিড বই! আমার মত পাঠকের পক্ষে খুব কঠিন এমন বইয়ের রিভিউ দেয়া তবুও নিজের কথাগুলো বলার মূল উদ্দেশ্য লেখকের কাছে এমন লেখা আরো চাই, জীবন্ত যা জীবন দেখায়, সত্যি, মিথ্যাকে সামনে মেলে ধরে।

সুহান সাহেবের সুস্বাস্থ্যের জন্য প্রার্থনা করবো আর উনি এখন আমার পছন্দের লেখকদের তালিকায় প্রথম দিকে থাকবেন।

গুডরিডস রেটিংঃ ৪.৬৯/৫
ব্যক্তিগত রেটিংঃ ৫/৫
হ্যাপি রিডিং
লেখক – নিপু সেন