মুক্তধারা

মায়ের ইচ্ছে পূরণ

ডা.তামান্না মাহফুজা তারিন: প্রেসেন্টিং- আমার মা,আমার মেয়ে,আমার খেলার সাথী,বকবকের সঙ্গী,আমার সবচেয়ে ভালো বান্ধবী। আমার মায়ের খেলার পুতুল ছিলাম আমি,বাবা ব্যবসায়ী হওয়ার কারণে কখনই পারেনি আম্মুকে ততোটা সময় দিতে যতটা একজন স্ত্রী প্রাপ্য।

কিন্তু এই মানুষটা সেটা নিয়ে কখনো অভিযোগ করেনি,হয়তো বড়জোর একটু মন খারাপ করতো,কিন্তু তার ওই মন খারাপ টুকুই যে আমার পুরো দুনিয়া এলোমেলো করে দেয়ার জন্য যথেষ্ট তাকি এই মিষ্টি বুড়িটা জানে?? তার যা যা স্বপ্ন আমার আব্বু সাথে থেকে পারেনি পূরণ করতে, সেই প্রতিটা ইচ্ছা আমি নিজে পূরণ করার চেষ্টা করেছি সবসময়,ঘুরাফিরা, মউজ-মাস্তি,শপিং,পাগলামি – এভ্রিথিং!

জীবনের এসব ইচ্ছা পূরণে সবচেয়ে বেশি প্রয়োজনীয় জিনিস কি? অনেকেই ভাববেন টাকা,বাট নাহ,আসলে সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন একজন মানুষ! আমার জন্য বিয়ের আগ পর্যন্ত সেই মানুষটা ছিলো আমার মা,বিয়ের পর থেকে মা আর অনিক দুজনেই, আর আমার মায়ের জন্য বুঝ হওয়ার পর থেকেই সেটা ছিলাম আমি,আর সাথে এখন যোগ হয়েছে তার মেয়ের জামাই-রূপী ছেলে!

শিমলাতে এই ঘোড়াটা দেখেই বাচ্চাদের মতো লাফাচ্ছিলো আমার মেয়েটা,বলছিল- আমি উঠবো কিন্তু কিভাবে উঠবো,এটা কত্ত উঁচু!!! কিসের কি,আমাদের মেয়ে বলেছে এই কথা! অনিক ঠিকই বাচ্চাদের মতো ঠেলেঠুলে আধকোলা করে তুলে দিলো তাকে ঘোড়াটার পিঠে!!! কিন্তু একি!!! আমার বুড়ি মেয়েতো ভয় পাচ্ছে!!! তাই আর কি,আমাকে যেই হাতগুলো ছোট্টবেলায় ভয়ের সময় আগলে রাখতো সেই হাত চেপেই তাকে ধরে দাড়িয়ে থাকলাম ঘোড়াটার পাশে ( যদিও নিজেই ঘোড়ার লাথি খাওয়ার আতংকে অস্থির ছিলাম,চেহারায় সেই ছাপ স্পষ্ট)!!!! জীবনের সেরা একটা মুহূর্ত! আমার বুড়িটার একটা অনেক বড় পাগলামো ইচ্ছে পূরণ হলো!!!