মুক্তধারা

অনুশোচনা ছাড়া বাঁচতে শিখুন

আফরিন পারভেজঃ যে ১৫টি বিষয় আপনাকে অনুশোচনা বা Regret ছাড়া বাঁচতে সাহায্য করবেঃ

১। সাহসী হোনঃ

ভয় আপনার সত্যিকারের সুখকে অনুসরণ করতে বাঁধা সৃষ্টি করবে।তাই সাহসী হতে চেষ্টা করুন, আর নিজের সাহসে ভরসা রাখুন ।

২। নিয়ন্ত্রন নিনঃ

নিজেকে আপনার জীবনের ড্রাইভিং সীটে বসান,নিজের মানসিকতা এবং নিজের জীবন নিজে নিয়ন্ত্রণ করুন।

৪। ছেড়ে দিনঃ

যেসব মানুষ বা বস্তু আপনাকে অনূপ্রানিত করে না তাদেরকে যেতে দিন বা ছেড়ে দিন। এমনকি যেসন অনূভুতিও আপনাকে কষ্ট দিচ্ছে তাদের মুক্ত করে দিন।

৫।নিজের সময়ের নিজে মালিক হোনঃ

আপনি যদি আপনার জীবনকে না চালান, জীবন আপনি চালাবে। আপনার সময় নিজের নিয়ন্ত্রনে নিন এবং বিজ্ঞতার সাথে সময়ের ব্যবহার করুন।

৬। গুজোব করা এবং শোনা বন্ধ করুনঃ

সংকীর্নমনের মানুষ অন্যদের সম্পর্কে কথা বলে। নিজের শক্তিগুলি অন্য লোকেরা কাজে ব্যায় না করে আত্মবিকাশে মনোযোগ দিন।

৭। আপনার অজুহাত চেয়ে বড় হোনঃ

দৃষ্টিভংগী এতটা বড়, শক্তিশালী এবং অকাট্য করুন যেন এটি আপনার মনের আসা যেকোনো ছোট থেকে ছোট অজুহাতকে পর্যন্ত অতিক্রম করে।অজুহাত যেন কখোনই নিজের ইচ্ছার চেয়ে বড় না হয়।

৮। আপনার কমফর্টজোন থেকে বের হোনঃ

বছরের পর বছর একই রুটিন জীবন আসলে জীবন নয়। নিজেকে বৃদ্ধি করুন, প্রসারিত করুন, নিজেকে আপনার সর্বশ্রেষ্ঠ সংস্করণে পরিণত করার সুযোগ দিন।

৯।পরিবার এবং বন্ধুদের সঙ্গে সময় কাটানঃ

নিজেকে পরিবার, বন্ধু এবং প্রিয় মানুষদের সাথে শেয়ার করুন।জীবন এর মূল্যবান মুহুর্তগুলো নিজের কাছে মূল্যবান মানুষদের কাছে কাটান ভালো।

১০।কৃতজ্ঞতা সীকার করুনঃ

জীবনের প্রতিদিন একটি উপহার। নিজের সমস্যা গণনা না করে আশীর্বাদ গণনা করুন ।

১১। অন্যকে তাদের মতো গ্রহণ করুনঃ
আপনি অন্যান্য মানুষকে পরিবর্তন করতে পারবেন না। কোনভাবেই না কখন না, তাই যে যেমন তাকে তেমন আর তার কারনে গ্রহণ করুন।

১২। সহানুভূতিশীল হোনঃ
সহানুভূতি সংযোগ সৃষ্টি করে। আর আমরা পৃথিবীতে সংযোগ এবং প্রেম এর কারনে। সকলের সঙ্গে সহানুভূতিশীল ব্যবহার অনুশীলন করুন।

১৩। বর্তমান মুহূর্তে বাচুঁনঃ
অতীত শেষ, ভবিষ্যতে অনির্দীষ্ট। তাই আমাদের যা কিছু সত্যি সব বর্তমানেই আছে, এখনই আছে। জীবন এই মুহুর্তে, এখানে, আর এটা বেঁচে থাকা।

১৪। সর্বপ্রথমে নিজেকে ভালোবাসুনঃ
নিজেকে ভালবাসতে শেখার জীবনযাপনের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। আবার নিজেকে ভালবাসা জীবনের সর্বাধিক বড় পুরষ্কার। তাই প্রথমে নিজেকে ভালবাসুন তারপর দেখুন চারপাশের পৃথিবী কিভাবে পরিবর্তন হয়।

১৫। নিজেকে সম্মুখে চলমান রাখুনঃ

পরিস্থিতির যাই হোক না কেন, আপনার বর্তমান বা অতীত কোন ব্যাপার না থাকলেও, আপনার হয়ত প্রতিদিন কোনও না কোন চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হয়। মনে রাখবেন, আপনার যেকোন চ্যালেঞ্জকে অতিক্রম করার ক্ষমতা আপনার মধ্যে রয়েছে, তা না হলে স্রষ্টা আপনাকে এর সম্মূখীন করতেন না। তাই চলতে থাকুন।

আর পরিষেশে মনে রাখবেন আপনাকে কেও না কেও ভালবাসেন।