মুক্তধারা

ভাঙ্গা সংসার’এর আহাজারি ও নিজেকে ভাল রাখা

একটা মেয়ের সংসার যখন ভেঙ্গে হয় চুরমার।মেয়েটির তখন কত ব্যাথা কত হাহাকার।বুঝে সুঝে উঠতে না উঠতেই দেখে পৃথিবীর কারবার।এদিক সেদিক চেয়ে দেখে সে স্বপ্ন হাহাকার।কত কথা ভাবে কতনা ছিল সেই মনে স্বপ্ন।বলি আমি তুমি সবাই দেখি ভেঙ্গে যাওয়া হাহাকার।
একটি সংসার ভেঙ্গে গেলে সেখানে তো আর কিছু করার থাকে না। কেউ তো আর ইচ্ছে করেই সংসার ভাঙ্গে না। সবাইতো চায় তার একটা সুন্দর সংসার থাক।সুখ দুঃখের বাঁধন মিলেই সেই সংসার আজীবন হোক।এ যেন জীবন ও মরণের বাঁধন।

একটা সংসার তো আর হঠাৎ করে ভাঙ্গে না। কোন না কোন কারণ থাকে।সে কারণ এক বা একাধিক,ইচ্ছা বা অনিচ্ছা যাই হোক না কেন।শেষ পর্যন্ত সংসার ভেঙ্গে গেলে কিছুই করার থাকে না। তাই বলে কি মরণ পর্যন্ত আহাজারি করতে হবে নাকি।এটা ঠিক নানান পরিস্থিতির কারণে কষ্টের উপর আরো কষ্ট বাড়ে।প্রথম প্রথম খারাপ লাগবে এবং এটাই স্বাভাবিক।তাই বলে কি এই খারাপ লাগা মরণ পর্যন্ত টেনে নিয়ে বয়ে বেড়াতে হবে নাকি।

সুস্থভাবে বাঁচার অধিকার সবার আছে।তার জন্য তো নিজেকে ভালোবাসতে শিখতে হবে।কোন না কোন কারণে সংসারটা ভেঙ্গেই গেছে।সেটা নিজের দোষেই হোক আর অপরের দোষেই হোক। কিন্তু এই ছোট্ট জীবনটা তো আর বেশিদিনের নয়।একেক দিন চলে গেলে আর ফিরে আসে না। একেক দিন পাওয়া মানে একটা উপহার পাওয়া।সেই দিনটায় ভালো না থাকাটা বোকামি।

ভাল থাকার চেষ্টা নিজেকেই আগে করতে হবে।সবার আগে নিজেকে ভালোবাসতে শিখতে হবে।তা না হলে অপরকে ভাল রাখার বিন্দুমাত্র শক্তিও থাকবে না।
ছোট্ট এই জীবনে হাজারও বৈচিত্র্যের নিয়তিতে আমাদের ভাল থাকার অসংখ্য উপহার ছড়িয়ে আছে।সেগুলোকে খুঁজে সুখকে লুফে নিয়ে জীবনটা সুন্দরভাবে উপভোগ করতে পারি।

একটা সংসার ভেঙ্গে গেলেই সব শেষ হয়ে যায় না।খারাপ লাগবে এটা স্বাভাবিক।কিন্তু ছোট্ট এই জীবনের অনুভূতিতে খারাপ লাগার দখলটাকে বেশি সুযোগ দেয়া বোকামি। নিজেকে ভাল রাখা আর আশেপাশে আপনজনদের ভাল রাখার ব্যাপারে অবশ্যই আমাদের লক্ষ্য রাখা উচিত।

ভাল মন্দের জীবনে সুখ দুঃখের লহরে সবকিছু মিলে জীবনকে সাত রংধনুই সাজিয়ে উপভোগ করতে পারি।কিভাবে প্রতিটা দিন ভাল থাকা যায় সেটাতো নিজের থেকে নিজেকে আর কেউ বেশি জানবে না।অতএব নিজের জন্য নিজের প্রতি খেয়াল রাখা অবশ্যই দরকার।তবেই তো ভাল থাকা সম্ভব। ভুল বা কষ্ট কোন না কোন কারণ থেকেই আমরা এই সবের ভুক্তভুগী হই।হতেই পারি।তাই বলে কেঁদে কেঁদে মরতে হবে নাকি।

ইতিহাস থেকে আমরা যেমন অনেক কিছু জানতে পারি বা শিখতে পারি তেমনি জীবনে যতই ভুল করে ফেলি না কেন। প্রতিটা ভুল থেকেই শিখার অবশ্যই কিছু না কিছু থাকে। আমরা নিজেদের অজান্তে শুধু শুধু ভুলচর্চা না করে ভুল শুধরে সাবধান হতে পারি।

লিখেছেনঃ জিলফিকা বেগম জুঁই