মুক্তধারা

ঝরে যাওয়া এক তনু

তনু এর ঘটনা ঘটে যাওয়ার পর আমরা দেশের মানুষ অনেক কথা প্রকাশ করেছি। যেমন কবিতা গল্প কত কত মন্তব্য।এছাড়াও এ নিয়ে অনেক মিছিল হয়। অনেকে এ নিয়ে অনেক আবেগ প্রকাশ করেছে।তাদের মধ্যে আমিও ব্যর্থতায় লজ্জিত একজন।

তনুরে নিয়া কি লিখিব
ভেবে পাইনা।
কত তনু এলো গেলো
কত্ত যন্ত্রণা
কত্ত যন্ত্রণা।
ভেবে কি কুল পাই আমরা,
তনুরে ও তনুরে
তনুরে ও তনুরে,
বোনরে ও বোনরে
মরেও যে তোর শান্তি নাই,
কত সমালোচনা রে
লিখিতে চাই না
পাইনা কোন ভরসা।
তনু তোরর লাশ নিয়া টানাটানি,
আরো যে কি হবো রে,
কত কি করে।
আর কি দেখিতে
হবে রে।
সবাই কেন ভয় পায় রে?
দোয়া করি তুই বেহেশতবাসী
হোস
কোন উছিলায়
আল্লাহ তোরে
দেক মাফ করে।

তারপর বেশ কিছুদিন হাজার হাজার মানুষ অনেক কথাই লিখেছে।যেন ঐ কটা দিন তনুকে মনে হচ্ছিল দেশের আদরের মধ্যমণি বোন।ভাবটা এমন ছিল সবাই তনুর জন্য কত কিনা করবে।কিন্তু সত্যিকার অর্থে আমরা সবাই ব্যর্থ। সেই ব্যর্থতার লজ্জা নিয়ে তনুর জন্য কিছুদিন পর একটা লেখা লিখেছিলাম।

অস্থির, অস্থির,অস্থির
আমরা শুধু অস্থির।
কত কথা
কত বাহানা।
কত জীবন
কত মমতা।
ভালোবাসা সব উছলে পরে,
তনুরে নিয়া স্বল্প সিনেমা করে।
কত কথা, তার
কত মায়া
তা শুধু জীবন বিষিয়ে।
বিশ্বাস যায় বিলুপ্তিতে,
অশ্রুর বন্যা বয়ে বয়ে।
পৃথিবী ধ্বংস হবে জানি একদিন
তাই বলে কি, এভাবে কেঁদে কেঁদে
কিছুই কিছুই, যে করার নাই।
তাই লুকিয়ে আছি
আমরা সব
তনু তনু তনুরা
তোমরা সবাই করো
নিয়ম,
আমরা সবাই তাকিয়ে দেখি
এইনা হলো
নিয়তি।

এই নিয়তির মতই কিছুদিন পর আমাদের দেশের বোন তনু লেখার মাঝে ধীরে ধীরে হারিয়ে গেলো।তারপর তনুকে নিয়ে আর লেখালেখি হয় না।তনুকে নিয়ে আর কারো মাথাব্যথা দেখা যায় না।যাই হোক, তনুর মা তো আর আশা ছাড়েনা।তিনমাস পরও তিনি বলেন,তিনি তার মেয়ের হত্যার বিচার চান।শুরু হয়ে গেলো মা কে হাজারো শান্তনা।কিন্তু রেজাল্ট জিরো।আমি শান্তনা দিতে চাই নি।তারপরও কথাগুলো আমার বলা হয় লজ্জামন ভরে।বুকে ব্যথা আর কষ্ট নিয়ে।

মাগো মা ও মা
কেঁদোনা কান্নার পৃথিবীতে
অনেক মায়েই কাঁদে,
সন্তান হারানোর ব্যথায়।
তনুর বিচার নিয়ে
তুমি কাঁদছো মা,
ক্ষমা করে দাও ওগো মা,
তোমার ঐ কান্নার মুখখানি গো মা,
ক্ষত করে দেয় হৃদয়।
আর কাঁদো না মা,
বাতাস ভারী যে হয়ে যায়,
পারি না গো সইতে,
করে দাও ক্ষমা।
পারলাম না মোরা কিছু করতে,
তিন মাস কি আর শুধু?
আরো কত সময় যে যাবে।
কত তনু গেছে মা,
আমরা সব দেখে শুনে
বোবা হয়ে শুধু রই।
আমরা যে সত্যিকার অর্থে পঙ্গু।
তুমি কাঁদো জানি,থামবে না
তোমার কান্না।
এখনও তো তোমার কোলে আছে তনু
ছোট্ট তনু হয়ে।
তুমি তা চোখ বুঝলেই বোঝ
তোমার অনুভূতি শুধু তুমিই জানো।
মিছে শান্তনা দিতে চাইনা তোমাকে আমি
মিছে সব রঙ্গ বাহানার নাটকের জ্বালায়,
বিচারো চাই না।
শুধু মা তোমাকে বলি
ওপারে মেয়ের জন্য করো অনেক দোয়া।

লিখেছেনঃ জিলফিকা বেগম জুঁই

(হুতুমপেঁচা শুধুমাত্র মেয়েদের ম্যাগাজিন, আমাদের কাছে লেখা পাঠাতে হলে আপনার লেখা এবং ছবি আমাদের ফেইসবুক পেইজ হুতুমপেঁচা ম্যাগাজিন ইনবক্স করুন, এছাড়াও লেখা সংক্রান্ত আপনার মূল্যবান মতামত এবং পরামর্শ আমাদেরকে কমেন্ট করে জানান। হুতুমপেঁচা-র সাথেই থাকুন।)