মুক্তধারা

মানুষ আর অমানুষ

মানুষ হয়ে পৃথিবীতে এসেছি আমি
বাঁচার স্বপ্ন নিয়ে বড় হয়েছি আমি,
খেলেছি হেসেছি পড়েছি,
বাঁচার কল্পনায় বড় হয়েছি
মানুষ হয়ে স্বপ্ন দেখেছি,
বেঁচে থাকার লড়াই করেছি
শিখে পড়ে জীবন গড়েছি।
হঠাৎ দেখি পৃথিবীর
চারদিকে আগুন কেন?
হঠাৎ দেখি পৃথিবীর
মানুষ নামের অমানুষ গুলো,
কিছু মানুষ আর কিছু অমানুষ
এই নিয়ে পৃথিবী হয় গড়াগড়ি
আর হয় হাঙ্গামা।
এই হাঙ্গামা হলেও
বেঁচে থাকা চলেও,
কত আশা সেই কত ভাষা
স্বপ্ন নিয়ে চলে আলোর আশা।
বলি বলি মানুষ তোমরা সবে
নিয়তির শিকার সকলে হবে,
ও মানুষ তোমরা যাবে কোথায়
যেথায় মানুষ যায় যাবে সেথায়।
ও মানুষ ও মানুষ হুশ নিয়ে চলো পৃথিবীতে
হুশ নেই কেনো তোমারদের রে
বেহুশ হয়ে কেনো চলোরে
হুশ কি তোমাদের ফিরবে নারে।
আমি শিশু আমি খেলনা নিয়ে খেলি
কি অপরাধে হলাম আমি ধর্ষণের বলি,
আমি কিশোরী আমি স্কুলে যাবো
কি অপরাধে আমি বাল্যবিবাহের শিকার হবো,
আমি বধূ আমি সংসার রচনা করবো
কি অপরাধে আমি যৌতুকে মরবো,
আমি মা আমি সন্তানদের সুখ শান্তি দেখবো
কি অপরাধে আমি বৃদ্ধাশ্রমে যাবো।
ওরে মানুষ তোরা কি জানিস না
বিপদে মানুষের পাশে থাকতে হয় সেটা কি তোরা মানিস না।
ধর্ষিতার পাশে না থেকে তোরা কেমনে চলিস রে
তোদের কেউ যখন এর শিকার হবে তখন কি করবি রে,
একটি কিশোরীর জীবন যখন ঝরে ঝরে যায়
তা তোরা দেখিস কেমনে চেয়ে চেয়ে হায়,
একটি মেহেদী রাঙ্গা নববধূর যখন অকাল মরণ হয়
তখন কি তোর ঘরের বোনের কথা স্মরণ হয়,
বাবা মা যখন বৃদ্ধাশ্রমে যায়
তখন কি তোরা ভুলে যাস বুড়ো হবি হায়।
ওরে মানুষ তোরা কি জানিস না
বিপদে মানুষের পাশে থাকতে হয় সেটা কি তোরা মানিস না।
স্বপ্ন দেখা কি মানুষের অপরাধ?
এটাই কি তবে মিথ্যে অপবাদ,
স্বপ্ন নিয়ে কি তোরা বেঁচে থাকিস?
পাশে থাকার নীতি তাহলে কই মানিস,
স্বপ্ন নিয়ে যখন বেঁচে থাকিস
মানুষের পাশে থাকতে হয় তাহলে সেটাও মানিস।
ওরে মানুষ তোরা কি শুনবি না,
ওরে মানুষ তোরা কি বুঝবি না,
ওরে মানুষ তোরা কি মানবি না,
তোরা কি তাহলে মানুষ হবি না,
যখন এর শিকার হবি তখন কি করবি হা।
ওরে মানুষ সময় থাকতে হুশ নিয়ে ফিরে আয়
বেহুশ হয়ে আর কত চলবি হায়,
এর শিকার হওয়ার আগে মানুষকে উদ্ধার করো
মানুষ হয়ে সুস্থ সুন্দর পৃথিবী গড়ো।
পৃথিবীতে নিরাপদে খেলুক শিশু,
নিশ্চিন্তে সংসার রচনা করুক বধূ,
কিশোরী হাসিতে হাসিতে স্কুলে চলুক,
বাবা মা সন্তানদের শান্তি সুখ দেখুক।
ওরে মানুষ তোরা কি চাস না?
তোদের ঘরে শান্তি থাকুক না,
শান্তিতে বাঁচো শান্তিতে মরো
সুস্থ সুন্দর পৃথিবী গড়ো।

লিখেছেনঃ জিলফিকা বেগম জুঁই

লেখিকার আরো অন্যন্য কবিতা পড়ুনঃ হুতুমপেঁচা  ম্যাগাজিন -এ ।