অনুরণন

রোমান এবং গ্রীক মাইথোলজিঃ দেবতাদের আবির্ভাব

 (পর্ব-২)

দেবতাদের আবির্ভাব

 

রোমান এবং গ্রীক দেবতাদের কথা আসলেই চলে আসে কিছু গল্প, যুদ্ধ, প্রেম-ভালবাসা, ছলনা, রাজনীতির জটিলতা। কিন্তু কখনো কি আমাদের মনে হয়েছে এসব কোথা থেকে আসল? এসবের শুরু কোথায়? আসুন জেনে নেয়া যাক।

 

গাইয়া (পৃথিবী) আর ইউরেনাস (আকাশ) এর বিয়ে হয় তাদের ছিল অনেক অনেক সন্তান আর সেসব সন্তানদের মধ্যেও ছিল ভয়ঙ্কর দানব সাইক্লোপস। ইউরেনাস আর গাইয়া’র এই সন্তানরা পরবর্তী সপম্রদায় “টাইটান” কে সৃষ্টি করে। কিন্তু ইউরেনাস টাইটানদের কে একদম পছন্দ করতেন না বরং তাদেরকে প্রচণ্ড ঘৃণা করতেন, আর গাইয়া ছিল সম্পূর্ণ উল্টো তিনি তাদের অত্যন্ত পছন্দ করতেন এবং এই জন্য তিনি তাদের সন্তান ক্রনোস কে সাহায্য করেন বাবার জায়গা দখল করতে।

 

ক্রনোস তার বোন রিহা কে বিয়ে করেন। এইসময় ছিল টাইটানদের জন্য সোনালী যুগ।এই সময় প্রোমেথিউস”- যিনি ছিলেন একজন টাইটান এবং তিনি মানব সভ্যতা সৃষ্টি করে পৃথিবীতে পাঠান শুধু তাইনা তিনি অলিম্পাস পাহাড় থেকে আগুন চুরি করে মানুষদেরকে উপহার দেন।

 

ক্রনোস কে ভবিষ্যতবাণী করা হয় যে তার কোন এক সন্তান তাকে সরিয়ে দিয়ে ভগবানের স্থান দখল করবেন। ক্রনোস তার এবং রিহার সমস্ত সন্তানকে জন্মের পরেই হত্যা করে ফেলেন। রিহা এইসব দেখতে দেখতে অসুস্থ হয়ে যায় এবং তাদের ৬ষ্ঠ সন্তান জিউসকে রক্ষা করার জন্য তিনি পাথরের আকৃতির একটি শিশু তৈরি করেন এবং ক্রনোস কে দেন। ক্রনোস পাথরের শিশুটিকে মেরে ফেলে এবং রিহা তার সন্তান জিউসকে রক্ষা করতে পারেন। এবং জিউসকে একটি গর্তে মেষ শাবক “আমেলথিয়া”র সাথে বড় করেন।

পরবর্তীতে জিউস থাকে তার বাবা ক্রনোস এর খুট –ফরমায়েশ খাটার চাকর। নিজের পরিচয় সম্পূর্ণ গোপন রেখে জিউস টাইটান দেবী মেটিস –যিনি পড়ে জিউসের প্রথম স্ত্রী থাকেন তার সাহায্যে ক্রনোস কে সরিষা আর আঙ্গুরের রসের একটি মিশ্রণ খাওয়ান যাতে করে ক্রনোস বমি করেন এবং তার হত্যা করা সকল সন্তান সেখান থেকে জীবিত হয়ে ফিরে আসেন।

 

জিউস তার ভাই- বোন দেরকে নিয়ে সোজা পৃথিবীতে চলে আসেন এবং অলিম্পাস নামের পাহাড়ে রাজত্ব শুরু করেন। দেবতাদের এই সম্প্রদায়কে অলিম্পাস গডস বলা হয়।

অলিম্পাস গডস থাকেন ১৪ জন ( দেবতাদের পরিচয় আর বিবরণ জানতে পর্ব-১ দেখুন) এরা সব্বাই মিলে টাইটানদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেন। এই যুদ্ধে টাইটানদের মধ্যে প্রমেথিউস জিউসকে সাহায্য করে এবং এটলাস থাকে ক্রনোস এর পক্ষে। দির্ঘ ১০ বছর যুদ্ধ করার পর অলিম্পাস গডস – রা বিজয় লাভ করে।

(চলবে……)

লেখিকাঃ আনিকা সাবা